প্রয়োজনে ফোন করুন:
+88 01978 334233

ভাষা পরিবর্তনঃ

Cart empty
  • Lalon Song Cloud

বাউল

বাউল (Baul) একটি বিশেষ লোকাচার ও ধর্মমত। এই মতের সৃষ্টি হয়েছে বাংলার মাটিতে। বাউলকূল শিরোমণি লালন সাঁইয়ের গানের মধ্য দিয়ে বাউল মত পরিচতি লাভ করে। বাউল গান যেমন জীবন দর্শনে সম্পৃক্ত তেমনি সুর সমৃদ্ধ। বাউলদের সাদামাটা কৃচ্ছসাধনার জীবন আর একতারা বাজিয়ে গান গেয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরে বেড়ানোই তাদের অভ্যাস। ২০০৫ সালে ইউনেস্কো বিশ্বের মৌখিক এবং দৃশ্যমান ঐতিহ্যসমূহের মাঝে বাউল গানকে অন্যতম শ্রেষ্ঠ সম্পদ হিসেবে ঘোষনা করে।

বাউল (Baul) শব্দটির উৎপত্তি নিয়ে মতান্তর রয়েছে। কেউ বলেন 'বাতুল' থেকে 'বাউল' হয়েছে, কারো মতে 'বজ্রী' থেকে কিংবা 'বজ্রকুল' থেকে বাউল শব্দটি এসেছে। কেউ কেউ বলেন 'আউল' শব্দ থেকে 'বাউল হয়েছে। ইতিহাসবিদদের মতে, সতেরো শতকে বাংলাদেশে বাউল মতের উদ্ভব হয়। এ মতের প্রবর্তক হলেন আউল চাঁদ ও মাধববিবি। বীরভদ্র নামে এক বৈষ্ণব মহাজন সেই সময়ে একে জনপ্রিয় করে তোলেন।

বাংলাদেশের কুষ্টিয়া-পাবনা এলাকা থেকে শুরু করে পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম-বোলপুর-জয়দেবকেন্দুলি পর্যন্ত বাউলদের বিস্তৃতি। বাউলদের মধ্যে গৃহী ও সন্ন্যাসী দুই প্রকারই রয়েছে। বাউলরা তাদের গুরুর আখড়ায় সাধনা করে। প্রতি বৎসর পৌষ সংক্রান্তির দিন বীরভূমের জয়দেব-কেন্দুলিতে বাউলদের একটি মেলা শুরু হয়, যা "জয়দেব বাউলমেলা" নামে বিখ্যাত।

আমি তারে কি আর ভুলিতে পারি

আমার এই মনে

আমি তারে কি আর ভুলিতে পারি
আমার এই মনে।।

ভক্তের দ্বারে বাঁধা আছেন সাঁই

হিন্দু কি যবন বলে জাতের বিচার নাই

ভক্তের দ্বারে বাঁধা আছেন সাঁই
হিন্দু কি যবন বলে জাতের বিচার নাই।।

এমন সমাজ কবে গো সৃজন হবে

যেদিন হিন্দু মুসলমান বৌদ্ধ খ্রিস্টান জাতি গোত্র নাহি রবে

এমন সমাজ কবে গো সৃজন হবে।
যেদিন হিন্দু মুসলমান বৌদ্ধ খ্রিস্টান
জাতি গোত্র নাহি রবে।।

ভজরে জেনে শুনে

নবী কলমা কলেন্দা আলী হালদাতা

ভজরে জেনে শুনে
নবী কলমা কলেন্দা আলী হালদাতা
ফাতেমা দাতা কি ধন দানে।।

ব্রজ লীলে একী লীলে

কৃষ্ণ গোপী কারে জানাইলে

ব্রজ লীলে একি লীলে
কৃষ্ণ গোপী কারে জানাইলে॥

মন চোরা রে কোথা পাই

কোথা যাই মন আজ কীসে বুঝাই

মন চোরা রে কোথা পাই।
কোথা যাই মন আজ কীসে বুঝাই।।

এ গোকুলে শ্যামের প্রেমে কেবা না মজেছে সখি

কারও কথা কেউ বলে না আমি একা হই কলঙ্কী

এ গোকুলে শ্যামের প্রেমে
কেবা না মজেছে সখি!
কারও কথা কেউ বলে না
আমি একা হই কলঙ্কী।।

ফরিদা পারভীন লালন সঙ্গীত শিল্পী

ফরিদা পারভীন (জন্মঃ ৩১ ডিসেম্বর ১৯৫৪ইং) বাংলাদেশের আপামর-সাধারণের কাছে দীর্ঘদিন ধরেই লালন সঙ্গীত এবং ফরিদা পারভীন পরস্পর পরিপূরক এবং অবিচ্ছিন্ন দু'টি নাম। লালন সাঁইজির গানের প্রসঙ্গ উঠলেই বাঙালীর মন-কানে প্রথমেই যাঁর কন্ঠস্বর ও সুর বেজে ওঠে, তা নিশ্চিতভাবেই ফরিদা পারভীনের।

দয়া কর মোরে গো

বেলা ডুবে এলো

গুরু, দয়া কর মোরে গো
বেলা ডুবে এলো।
তোমার চরন পাবার আশে, রইলাম বসে
সময় বয়ে গেল।।

সব সৃষ্টি করলো যে জন

তারে সৃষ্টি কে করেছে

সব সৃষ্টি করলো যে জন
তারে সৃষ্টি কে করেছে।
সৃষ্টি ছাড়া কি রূপে সে
সৃষ্টিকর্তা নাম ধরেছে।।

কি করি কোন পথে যাই

দোটানাতে ভাবছি বসে

কি করি কোন পথে যাই মনে কিছু
ঠিক পড়ে না।
দোটানাতে ভাবছি বসে
ঐ ভাবনা।।

মন আমার গেল জানা

কারো রবে না এ ধন জীবন যৌবন

মন আমার গেল জানা
কারো রবে না এ ধন জীবন যৌবন
তবে রে কেন এত বাসনা।

খুলবে কেন সে ধন মালের গ্রাহক বিনে

মুক্তামণি রেখেছে ধনি বোঝাই করে সেই দোকানে

খুলবে কেন সে ধন
মালের গ্রাহক বিনে,
মুক্তামণি রেখেছে ধনি
বোঝাই করে সেই দোকানে।।

ভুলো না মন কারো ভোলে

রাসুলের দিন সত্য মান ডাক সদাই আল্লা বলে

ভুলো না মন কারো ভোলে।
রাসুলের দিন সত্য মান ডাক সদাই আল্লা বলে।।

আমার মন চোরারে কোথা পাই

কোথা যাই, ও মন আজ কিসে বোঝাই

আমার মন চোরারে কোথা পাই।।
কোথা যাই, ও মন আজ কিসে বোঝাই
আমার মন চোরারে কোথা পাই।।

লীলার যার নাইরে সীমা কোন সময় কোন রুপ সে ধরে

সাঁইর লীলা বুঝবি ক্ষ্যাপা কেমন করে

লীলার যার নাইরে সীমা কোন সময় কোন রুপ সে ধরে।
সাঁইর লীলা বুঝবি ক্ষ্যাপা কেমন করে।।

পরমে পরম জানিয়া

এসেছি হেথায় তোমারি আজ্ঞায়

এসেছি হেথায় তোমারি আজ্ঞায়
আদেশ করিবা মাত্র যাবো চলিয়া

বাউলের আঞ্চলিক বৃত্ত ও পদকর্তা

বাংলার বাউলদের আঞ্চলিক সীমারেখা হল বাংলাদেশের কুষ্টিয়া, চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর, ঝিনাইদহ, মাগুরা, ফরিদপুর, যশোর, খুলনা, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, বরিশাল, সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, টাঙ্গাইল, জামালপুর, ঢাকা, মানিকগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চট্টগ্রাম ইত্যাদি অব্জল এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম, বাকুড়া, নদীয়া, মুর্শিদাবাদ, চব্বিশপরগণা ইত্যাদি।

বাউল - সাইমন জাকারিয়া

বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের গ্রামীণ সৃজনশীল সাধকদের মধ্যে বাউল সম্প্রদায় অত্যন্ত প্রসিদ্ধ। এই সম্প্রদায় মূলত দেহ-সাধনা করেন এবং গানের মাধ্যমেই সেই দেহ-সাধনার কথা প্রকাশ ও প্রচার করেন। বাউলদের রচিত গানের ভাবের গভীরতা, সুরের মাধুর্য, বাণীর সার্বজনীন মানবিক আবেদন বিশ্ববাসীকে মহামিলনের মন্ত্রে আহ্বান করে।

ভুল বুঝে চলে যাও

যত খুশি ব্যাথা দাও

(যদি) ভুল বুঝে চলে যাও যত খুশি ব্যথা দাও
সব ব্যথা নীরবে সইবো
বন্ধুরে, তোমার লেখা গানটারে গাইবো।।

পাতা 6 এর 22

Close

নতুন তথ্য

  • 27 মে 2020
    আব্দুস সাত্তার মোহন্ত
    আব্দুস সাত্তার মোহন্ত (জন্ম নভেম্বর ৮, ১৯৪২ - মৃত্যু মার্চ ৩১, ২০১৩) একজন বাংলাদেশী মরমী কবি, বাউল...
  • 21 মে 2020
    মাবরুম খেজুর (Mabroom Dates)
    মাবরুমের খেজুরগুলি এক ধরণের নরম শুকনো জাতের (আজওয়া খেজুরের মতই)। যা মূলত পশ্চিম উপদ্বীপে সৌদি...
  • 04 মে 2020
    আনবার খেজুর (Anbara Dates)
    আনবার খেজুরগুলি মদীনা খেজুরগুলির মধ্যে অন্যতম সেরা। আনবারা হ'ল সৌদি আরবের নরম ও মাংসল শুকনো জাতের...
  • 04 মে 2020
    আজওয়া খেজুর (Ajwa Dates)
    পৃথিবীতে অনেক জাতের খেজুর পাওয়া যায়। তাঁর মধ্যে আজওয়া খেজুর অন্যতম। তামার বা খেজুর শব্দটি আল কোরআন...
  • 27 এপ্রিল 2020
    মৌলভী আফছার উদ্দিন আহমদ
    মৌলভী আফসার উদ্দিন আহমদ (জন্মঃ- ১৮৮৬ মৃত্যুঃ- ২৯শে জানুয়ারী ১৯৫৯ ইং) কুষ্টিয়া জেলার অন্যতম...

নতুন লালন গীতি

Subscribe Our Newsletter

welcome to our newsletter subscription

প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রকাশকঃ- সালেকউদ্দিন শেখ সুমন

We Bangla

Go to top