প্রয়োজনে ফোন করুন:
+88 01978 334233

ভাষা পরিবর্তনঃ

Cart empty

ঈদ উল-আযহা ২০১৪

(পড়তে সময় লাগবেঃ-: 2 - 4 minutes)

ঈদ উল-আযহা (ইংরেজিঃ “Eid Al-Adha” আরবিঃ “عيد الأضحى” অর্থ "বলিদান এর ফেস্টিভাল")। প্রতি বারের ন্যায় এবারো মুসলিম বিশ্বের জন্য প্রবিত্র ঈদ উল-আযহা পালিত হতে যাচ্ছে। ঈদ উল আযহার মুল উদ্দেশ্য আল্লহকে খুশী করার জন্য নিজের প্রিয় পশুটিকে কুরবানি দেওয়া।

ঈদ উল-আযহা পালিত হবে আগামী সোমবার ৬ অক্টোবর ২০১৪ ইংরেজি এবং বাংলা মাসের ২১শে আশ্বিন ১৪২১।

বাংলাদেশের মুসলিমরা সাধারণত গরু, ছাগল এবং ভেড়া কুরবানি দেয়। বর্তমানে উঠ এবং দুম্ববা কুরবানি দিতে দেখা যায়। বিপুল উৎসাহ নিয়ে বাংলাদেশে এই উৎসব পালিত হয়। আমাদের কুষ্টিয়া শহরে ও এই উৎসবের কমতি নেই। সব শ্রেণীর মানুষ এই ধর্মীয় উৎসব যোগ দেয়। মুসলমানদের জন্য দ্বিতীয় বড় ধর্মীয় উৎসব। ঈদের দিনে সবাই সকাল সকাল নামায আদায় করে, সামর্থ্য অনুযায়ী কুরবানিতে অংশ নেয়।

পরবর্তীতে ধর্মীয় নিয়ম রীতি অনুযায়ী ভাগ করে তা গরীব দুঃখীর মাঝে তা বিতরণ করা হয়। আমাদের কুষ্টিয়া শহরের বেশীর ভাগ মানুষ এতে অংশ নেয়। এই ঈদ কে কেন্দ্র করে কুষ্টিয়া শহরে রব রব সাঁজে সজ্জিত হয়। পারা-মহল্লার ছেলে-মেয়েরা রাস্থা, মাঠ এবং তাঁদের ক্লাবকে দারুণ সজ্জিত করে।

কুষ্টিয়া শহরের মানুষ দারুণ ভাবে এই ঈদ কে উপভোগ করে। কুষ্টিয়া শহরের প্রায় সব মোড় ঈদের সময় নতুন রুপ ধারণ করে। দুষ্ট ছেলের দলকে দেখা যায় নাচানাচি করতে।

 

আমরা কুষ্টিয়া মানুষ বেশ সচেতন। আশা করি সকল হিংসা বিদ্বেষ ভুলে এই উৎসবে আমরা সবাই যোগ দিব। পাশাপাশি গরীব দুঃখীদের মাঝেই থাকবো। কোন প্রকার খারাপ কাজে লিপ্ত হব না এবং হতে দিব না।

ঈদ উল-আযহা উপলক্ষে কুষ্টিয়াশহর.কম (www.kushtiatown.com) এর পক্ষ থেকে আপনাদের জানায় “ঈদ মোবারাক”। আমরা আপনাদের কাছে দোয়া প্রার্থী। আমরা যেন আমাদের এই ওয়েব সাইট এর মাধ্যমে বিশ্বের দরবারে কুষ্টিয়া শহরের ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি তুলে ধরতে পারি। আবারো সবাইকে –

ঈদ মোবারাক

 

 

 

মন্তব্য

মানুষ এবং সমাজের ক্ষতিসাধন হয় এমন মন্তব্য হতে বিরত থাকুন।


Close

নতুন তথ্য

নতুন তথ্য

Subscribe Our Newsletter

welcome to our newsletter subscription

প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রকাশকঃ- সালেকউদ্দিন শেখ সুমন

Made in Bangla

Go to top