প্রয়োজনে ফোন করুন:
+88 01978 334233

ভাষা পরিবর্তনঃ

Cart empty

শেষ হল ১২৪তম তিরোধান দিবস লালন স্মরণ উৎসব

শেষ হল ১২৪তম তিরোধান দিবস লালন স্মরণ উৎসব গত ২০শে অক্টোবর ২০১৪। লক্ষ লক্ষ লালন পাগলের পদধূলিতে মুখরিত ছিল লালন শাঁইজির আঁখড়াবাড়ী। দেশ বিদেশের অসংখ্য লালন ভক্ত ভিড় জমায় এই লালন স্মরণ উৎসবে। পাঁচ দিনের এই স্মরণ উৎসবে প্রতিদিন রাত দশ থেকে টানা ভোর চারটা পযন্ত লালনের গান পরিবেশন হয়।

দেশ বিদেশের অসংখ্য শিল্পী গান গেয়েছেন ফকির লালন শাঁইজীর মাঠে। এছাড়াও বিভিন্ন স্থানে সাধুরা বসে তাঁদের ভাব দর্শন তুলে ধরে। সাধুরা তাঁদের নিজ নিজ অবস্থানে থেকেও গান পরিবেশন করেন লালন ভক্তদের জন্য।

লালনের আঁখড়া বাড়ি পাশে ভোটন সাধুর একটি আঁখড়া বাড়ি আছে, যার নাম “আয়না মহল”। মেলার সময় চলে সেইরাম গান যাকে বলে ননস্টপ, কি রাত কি দিন সবসময়। অনেক আগে থেকেই আয়না মহলে বিদেশি মানুষ এসে থাকে মেলার সময়। দেশি বিদেশি শিল্পীর সমন্বয়ে গান পরিবেশন হয়। সে এক অপুরুপ দৃশ এবং প্রতিটি গানই তাত্ত্বিক গান।

লালন মেলাকে কেন্দ্র করে লালন শাঁইজীর মাঠে গড়ে উঠে অনেক দোকান। মৃদু শিল্প, কারু শিল্প, বাউল গানের বিভিন্ন যন্ত্র কিনতে পাওয়া যায় এই সময়। হস্ত শিল্পের অনেক কাজ দেখা যায় এই মেলায়।

ফকির লালন শাঁইজীর আঁখরা বাড়ির কিছু দূরে রয়েছে মহা-শ্মশান। মহা-শ্মশানে এই লালনকে ঘিরে শুরু হয় মহা উৎসব। যা বসরের অন্য সময় দেখা যায় না। মেলার সময় সাধুদের গানে গানে মুখরিত থাকে দিন রাত এই শ্মশান। পাঁশেই গড়াই নদী বহমান। সে এক অপরূপ দৃশ্য।

এই মেলার মূল উদ্দেশ্য লালনের বানীকে খণ্ডিত করে সাধারন মানুষকে বুঝানো। লালনের কথার ভাব দর্শন হয় এই উৎসবে। ফকির লালন ছিল মূর্খ। সে পড়াশোনা জানতো না। তাঁর ছিল না কোন স্থায়ী ঠিকানা। সে পথে পথে ঘুরতো আর মানব সমাজ নিয়া গান করতো। তিনি মূর্খ ছিলেন তবুও তিনি এতো জ্ঞানী হয়ে উঠেন। তাঁর কোন কথা ফেলে দেবার মতো নয়। আর হয়তো সে জন্য দিন দিন তাঁর জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে।

এইবারের আয়োজন সফল ভাবেই শেষ হয়েছে। আর এই সফলতার পিছে ছিল লালন পাগল ভক্তরা, স্থানীয় প্রশাসন এবং লালন একাডেমীর সদস্যবৃন্দ। তাঁদেরকে জানায় আমাদের পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন।

আসছে সামনে বছর দোল পূর্ণিমা উৎসবে আপনাকে আমন্ত্রণ।

মন্তব্য

মানুষ এবং সমাজের ক্ষতিসাধন হয় এমন মন্তব্য হতে বিরত থাকুন।


Close

নতুন তথ্য

দার্শনিক আরজ আলী মাতুব্বর শুক্রবার, 24 জানুয়ারী 2020
দার্শনিক আরজ আলী মাতুব্বর আরজ আলী মাতুব্বর (জন্ম:- ১৭ ডিসেম্বর, ১৯০০ – মৃত্যু:- ১৫ মার্চ ১৯৮৫) একজন বাংলাদেশী দার্শনিক, মানবতাবাদী, চিন্তাবিদ...
হালতির বিল বৃহস্পতিবার, 23 জানুয়ারী 2020
হালতির বিল হালতির বিল বা হালতি বিল নাটোর সদর থেকে ১০ কিলোমিটার উত্তরে নলডাঙ্গা থানার অন্তর্গত বিল। এটি অত্র অঞ্চলের অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র হিসেবেও ব্যবহৃত হয়।
চলন বিল বুধবার, 22 জানুয়ারী 2020
চলন বিল চলন বিল বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের একটি বৃহৎ বিল। এটি রাজশাহী, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, এবং পাবনা জেলা জুড়ে...
ঐতিহ্যবাহী মাদার গান বুধবার, 22 জানুয়ারী 2020
ঐতিহ্যবাহী মাদার গান মাদার গান বাংলার লোকসংস্কৃতির এক অমূল্য সৃষ্টি। এ গানের উৎপত্তিস্থল বাংলাদেশের নাটোর জেলা‍র চলনবিল অঞ্চলে। এছাড়া...
জারী সম্রাট মোসলেম উদ্দিন বয়াতী মঙ্গলবার, 21 জানুয়ারী 2020
জারী সম্রাট মোসলেম উদ্দিন বয়াতী চারণ কবি জারী সম্রাট মোসলেম উদ্দিন বয়াতী (জন্মঃ- ১৯০৪ - মৃত্যুঃ- ১৯ আগস্ট ১৯৯০) বাল্যকাল হতেই তিনি সংগীতানুরাগী ছিলেন এবং জারী, ভাব,...

আমাদের ঐতিহ্য নতুন তথ্য

হালতির বিল হালতির বিল বা হালতি বিল নাটোর সদর থেকে ১০ কিলোমিটার উত্তরে নলডাঙ্গা থানার অন্তর্গত বিল। এটি অত্র অঞ্চলের অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র হিসেবেও ব্যবহৃত হয়।
চলন বিল চলন বিল বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের একটি বৃহৎ বিল। এটি রাজশাহী, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, এবং পাবনা জেলা জুড়ে...
জমিদার বাড়ির বাধা ঘাট - নড়াইল রূপগঞ্জের চিত্রা নদীর পাড়ে অবস্থিত প্রায় ২০০ বছরের পুরনো জমিদারদের বাঁধা ঘাটটি। রোমান স্থাপত্যের আদলে নির্মিত ঘাটটি বেশ...
মাইকেল মধুসূদন দত্ত মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত (২৫ জানুয়ারি ১৮২৪ – ২৯ জুন ১৮৭৩) ঊনবিংশ শতাব্দীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ বাঙালি কবি ও নাট্যকার এবং প্রহসন রচকার। তাকে...
কিংবদন্তী নায়িকা সুচিত্রা সেন সুচিত্রা সেন (৬ এপ্রিল, ১৯৩১ - ১৭ জানুয়ারি, ২০১৪) একজন ভারতীয় অভিনেত্রী ছিলেন। তার জন্মগত নাম ছিল রমা দাশগুপ্ত। তিনি...

Subscribe Our Newsletter

welcome to our newsletter subscription

প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রকাশকঃ- সালেকউদ্দিন শেখ সুমন

Made in kushtia

Go to top