Language Switcher:

Cart empty

বাংলা গানের অমর গীতিকবি এবং সংগীতস্বাতী - মাসুদ করিম

মাসুদ করিম ( জন্মঃ ১৭ ফেব্রুয়ারি, ১৯৩৬ - মৃত্যুঃ- ১৬ নভেম্বর, ১৯৯৬) ছিলেন একজন খ্যাতিমান বাংলাদেশী গীতিকার। দেশ বিদেশের অনেক খ্যাতিমান সুরকারেরা তার রচিত গানে সুর দিয়েছেন এবং বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পীরা গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। সঙ্গীতে অবদানের জন্য দুইবার শ্রেষ্ঠ গীতিকার বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।

‘সজনী গো ভালোবেসে এত জ্বালা’, ‘শত্রু তুমি বন্ধু তুমি’, ‘তোমরা যারা আজ আমাদের ভাবছ মানুষ কিনা’, ‘কিছু বলো, কিছু বলো’, ‘তন্দ্রা হারা নয়নও আমার’, ‘যখন থামবে কোলাহল’, ‘শিল্পী আমি তোমাদের গান শোনাব’ এসব হৃদয়ছোঁয়া গানের স্রষ্টা গীতিকার মাসুদ করিম। অমর অনেক সংগীতের এই স্রষ্টা বাংলাদেশের সঙ্গীত জগতে অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি নাম।

গীতিকার মাসুদ করিম কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলার দুর্গাপুর কাজীপাড়ায় ১৯৩৬ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা রেজাউল করিম ছিলেন একজন সরকারী চাকরিজীবী, মা নাহার গৃহিনী। মাসুদ করিমের সহধর্মিনী দিলারা আলোও একজন সুনামধন্য সঙ্গীত শিল্পী। বাংলাদেশ রেডিও ও টিভিতে তিনিও কয়েক যুগ ধরে সংগীত পরিবেশন করে এসেছেন। মাসদু করিম প্রোগ্রাম অফিসার হিসেবে প্রথম কর্মজীবন শুরু করেন ঢাকা ও চট্টগ্রাম রেডিও’তে। কয়েক বছর চাকরি করেন ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাইস চ্যান্সেলরের সেক্রেটারি হিসেবে।

১৯৬০ সাল থেকে তিনি রেডিও ও টেলিভিশনের জন্য গান রচনা শুরু করেন। ষাট, সত্তর ও আশির দশকে তিনি চলচিত্রের জন প্রচুর গান লিখেছেন। রচনা করেছেন অনেক গীতি নকশা, যার মধ্যে অন্যতম স্বাধীনতা দিবস, একুশে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষ্যে গানের অনুষ্ঠান, ঈদের অনুষ্ঠান ইত্যাদি। ১৯৮২ সালে ‘রজনীগন্ধা’ এবং ১৯৯৪ সালে ‘হৃদয় থেকে হৃদয়’ ছবির গানের জন্য গীতিকার মাসুদ করিম শ্রেষ্ঠ গীতিকার হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন দুইবার। গীতিকার মাসুদ করিম চলচ্চিত্র প্রযোজনা করেন। তার প্রযোজিত ছবিগুলো- ‘অচেনা অতিথি’, ‘ওয়াদা’, এবং ‘ভালো মানুষ’।

বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে গভীরভাবে জড়িত ছিলেন তিনি। বাংলাদেশ লায়ন্স ক্লাবের ছিলেন আজীবন সদস্য। বাংলাদেশ গীতিকবি সংসদের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা এবং সভাপতি ছিলেন। অনেক তরুণ এবং প্রবীণ গীতিকার, কবিদের তিনি সাহায্য করতেন গান ও কবিতা লিখতে। বাংলাদেশ সংগীত পরিষদেও তিনি যুক্ত ছিলেন সহ সভাপতি হিসেবে।

মাসুদ করিম গান লিখতে শুরু করেন ১৯৫৫ সাল থেকে। তাঁর গানের সংখ্যা অনেক। তার মধ্যে কিছু প্রিয় গান গুণী শিল্পীরা গেয়েছেন। বশীর আহমেদের কণ্ঠে-‘সজনী গো ভালোবেসে এত জ্বালা’, আব্দুল জব্বারের কন্ঠে-‘শত্রু তুমি বন্ধু তুমি’, খুরশিদ আলমের কন্ঠে- ‘তোমরা যারা আজ আমাদের ভাবছ মানুষ কিনা’, সৈয়দ আব্দুল হাদীর কন্ঠে- ‘কিছু বলো, কিছু বলো’, মুহাম্মদ আলি সিদ্দিকীর কন্ঠে-‘বাঁশি বাজে ওই দূরে, হাসিনা মমতাজের কন্ঠে-‘তন্দ্রা হারা নয়নও আমার, ফেরদৌসী রহমানের কন্ঠে- ‘দুটি চোখে চোখ রেখে’। রুনা লায়লার কন্ঠে- ‘যখন থামবে কোলাহল’, ‘শিল্পী আমি তোমাদের গান শোনাব’, 'যখন আমি থাকবো নাকো' 'আমি সুজন দেখে ভাব করেছি', শাহনাজ রহমতুল্লার কন্ঠে-‘ওই আকাশ ঘিরে সন্ধা নামে’, মাহমুদুন্নবীর কন্ঠে-‘সঙ্গীতা যদি ডাকি’,‘বাতাসে তোমার সংলাপ শুনি’, ‘তোমরা যারা আজ আমাদের’, সাবিনা ইয়াসমিনের কন্ঠে-‘আমি রজনী গন্ধ ফুলের মতো গন্ধ বিলিয়ে যাই’, ‘সন্ধারও ছায়া নামে’, ‘সামিনা নবীর কন্ঠে- ‘বেইমান বাঁশি, দিলারা আলোর কন্ঠে- ‘জোনাক জোনাক রাত, আনোয়ার উদ্দিনের কন্ঠে-‘যদি নীল সাগরের মুক্ত তুমি চাও, মাকসুদের কন্ঠে- ‘ঘর ছেড়েছি দুজনে, শুভ্র দেবের গাওয়া ' যে বাঁশি ভেঙে গেছে’ এমন অসংখ্য কালজয়ী গানের গীতিকার মাসুদ করিম।

প্রখ্যাত গজলসম্রাট মেহেদি হাসান, ভারতের শ্যামল মিত্র, ভূপেন হাজারিকা, ঊষা উত্থুপ, কুমার শানু, অনুরাধা পাড়োয়াল, উদিত নারায়ণও তাঁর লেখা গান করেছেন। এসব গানগুলো বই আকারে প্রকাশের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গীতিকার মাসুদ করিম যাঁর শত শত গান জনপ্রিয়তার সাথে সাথে লাখো-লাখো ভক্ত-শ্রোতাদের মনও ছুঁয়ে যায়।

মাসুদ করিম আজ নেই, কিন্তু তিনি বেঁচে আছেন তাঁর সৃষ্টিকর্মে। নতুন প্রজন্মের অনেকেই তাঁর গান সম্পর্কে জানে না। সে কারণে মাসুদ করিমের স্ত্রী প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী দিলারা আলো তাঁর লেখা গানগুলো সংগ্রহের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এ বিষয়ে তাকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করছেন শাহনাজ রহমতউল্লাহ, ফরিদা ইয়াসমীন, হাসিনা মমতাজ, সৈয়দ আবদুল হাদী, গাজী মাজহারুল আনোয়ার ও রুবাইয়াত ঠাকুর রবিন।

মাসুদ করিমের স্মৃতির উদ্দেশ্যে তাঁর স্ত্রী কন্ঠ শিল্পী দিলারা আলো,তার ছেলে ও তিন মেয়ে মিলে গঠন করেছেন ‘মাসুদ করিম মেমোরিয়াল ফাউন্ডেশন’। এই মহৎ প্রাণ গীতিকার এর স্মৃতি ধরে রাখার জন্য তাদের এই আন্তরিক প্রয়াস হিসাবে শিল্পী, কবি, সাহিত্যিক, গীতিকারদের মাসুদ করিম অ্যাওয়ার্ড দিয়ে সম্মানিত করার উদ্যোগ নিয়েছে। ইতোমধ্যে মাসুদ করিম অ্যাওয়ার্ড এর শুভ উদ্বোধনও হয়েছে। ১৯৯৬ সালের ১৬ নবেম্বর কানাডার মন্ট্রিয়েলে খ্যাতিমান এ গীতিকার মৃত্যুবরণ করেন। সংষ্কৃতির স্বার্থে সংগীতের প্রয়োজনে দেশের খ্যতিমান এ গীতিকারের যথার্থ মূল্যায়ন এবং তাঁর অমর গানগুলো রক্ষাণাবেক্ষণও ভীষণ জরুরী হয়ে পড়েছে প্রজন্মের জন্য-কালের জন্য।

মাসুদ করিমের লেখা কিছু উল্লেখযোগ্য গানঃ-

  1. RUNA LAILA - যখন থামবে কোলাহল - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  2. RUNA LAILA - শিল্পী আমি তোমাদের গান শোনাবো - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  3. SABINA YASMIN - সন্ধ্যারও ছায়া নামে - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  4. SABINA YASMIN - আমি রজনীগন্ধা ফুলের মতো - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  5. SHYAMAL MITRA & SABINA YASMIN - পথেরও সাথী নামো গো পথে আজ - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  6. Runa Laila & Co-artist - তুমি আমি দুজনাতে - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  7. Khurshid Alam - তোমরা যারা আজ আমাদের ভাবছো মানুষ কি না - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  8. Mehdi Hassan - Meri Zindagi Mere Paas Aa - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  9. Mehdi Hassan - তুমি যে আমার ভালোবাসা - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  10. Hemanta Mukherjee - যে বাঁশী ভেঙে গেছে - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  11. SHAHNAZ RAHMAT ULLAH -খোলা জানালায় এক মুঠো আলো - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  12. Maqsood -ঘর ছেড়েছি দুজনে - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  13. Maqsood -হেসে খেলে এই মনটা আমার - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  14. Dilara Alo -জোনাক জোনাক রাত - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  15. Kumar Sanu, Uma Khan, Kavita Padwal - আমাদের পৃথিবীতে তোমরা দুজন - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  16. ANURADHA PADWAL - দুঃখ দেয়ার মানুষটাও হারিয়ে গেছে আমার - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  17. ভালোবাসা মানে না কোন পরাজয় - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  18. Kumar Shanu & Uma Khan - তুমি এমন কোন কথা বলো না - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  19. সজনী গো ভালোবেসে এত জ্বালা - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  20. Abdul Jabbar - শত্রু তুমি বন্ধু তুমি - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  21. Syed Abdul Hadi - কিছু বলো, কিছু বলো - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  22. MOHAMMAD ALI SIDDIQUI - বাঁশি বাজে ওই দূরে - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  23. Hasina Mamtaz - তন্দ্রা হারা নয়নও আমার - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  24. Ferdousi Rahman - দুটি চোখে চোখ রেখে - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  25. RUNA LAILA - যখন আমি থাকবো নাকো - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  26. RUNA LAILA - আমি সুজন দেখে ভাব করেছি - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  27. Shahnaz Rahmatullah - ওই আকাশ ঘিরে সন্ধা নামে - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  28. Mahmudun Nabi - সঙ্গীতা যদি ডাকি - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।
  29. Mahmudun Nabi - বাতাসে তোমার সংলাপ শুনি - গান শুনতে চাইলে ক্লিক করুন।

বিশেষ তথ্য কৃতজ্ঞতাঃ- লিটন আব্বাস

Add comment


Security code
Refresh

Close

নতুন তথ্য

দার্শনিক আরজ আলী মাতুব্বর আরজ আলী মাতুব্বর (জন্ম:- ১৭ ডিসেম্বর, ১৯০০ – মৃত্যু:- ১৫ মার্চ ১৯৮৫) একজন বাংলাদেশী দার্শনিক, মানবতাবাদী, চিন্তাবিদ...
হালতির বিল Thursday, 23 January 2020
হালতির বিল হালতির বিল বা হালতি বিল নাটোর সদর থেকে ১০ কিলোমিটার উত্তরে নলডাঙ্গা থানার অন্তর্গত বিল। এটি অত্র অঞ্চলের অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র হিসেবেও ব্যবহৃত হয়।
চলন বিল Wednesday, 22 January 2020
চলন বিল চলন বিল বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলের একটি বৃহৎ বিল। এটি রাজশাহী, নাটোর, সিরাজগঞ্জ, এবং পাবনা জেলা জুড়ে...
ঐতিহ্যবাহী মাদার গান মাদার গান বাংলার লোকসংস্কৃতির এক অমূল্য সৃষ্টি। এ গানের উৎপত্তিস্থল বাংলাদেশের নাটোর জেলা‍র চলনবিল অঞ্চলে। এছাড়া...
জারী সম্রাট মোসলেম উদ্দিন বয়াতী চারণ কবি জারী সম্রাট মোসলেম উদ্দিন বয়াতী (জন্মঃ- ১৯০৪ - মৃত্যুঃ- ১৯ আগস্ট ১৯৯০) বাল্যকাল হতেই তিনি সংগীতানুরাগী ছিলেন এবং জারী, ভাব,...

আমাদের সংস্কৃতির নতুন তথ্য

দার্শনিক আরজ আলী মাতুব্বর আরজ আলী মাতুব্বর (জন্ম:- ১৭ ডিসেম্বর, ১৯০০ – মৃত্যু:- ১৫ মার্চ ১৯৮৫) একজন বাংলাদেশী দার্শনিক, মানবতাবাদী, চিন্তাবিদ...
ঐতিহ্যবাহী মাদার গান মাদার গান বাংলার লোকসংস্কৃতির এক অমূল্য সৃষ্টি। এ গানের উৎপত্তিস্থল বাংলাদেশের নাটোর জেলা‍র চলনবিল অঞ্চলে। এছাড়া...
জারী সম্রাট মোসলেম উদ্দিন বয়াতী চারণ কবি জারী সম্রাট মোসলেম উদ্দিন বয়াতী (জন্মঃ- ১৯০৪ - মৃত্যুঃ- ১৯ আগস্ট ১৯৯০) বাল্যকাল হতেই তিনি সংগীতানুরাগী ছিলেন এবং জারী, ভাব,...
চিত্রশিল্পী এস, এম সুলতান শেখ মোহাম্মদ সুলতান (১০ আগস্ট ১৯২৩ - ১০ অক্টোবর ১৯৯৪) যিনি এস এম সুলতান নামে সমধিক পরিচিত, ছিলেন একজন বাংলাদেশী প্রখ্যাত...
মোহাম্মদ এয়াকুব আলী চৌধুরী মোহাম্মদ এয়াকুব আলী চৌধুরী (জন্মঃ- ১৮৮৮ মৃত্যুঃ- ১৫ ডিসেম্বর ১৯৪০) যিনি সচরাচর সাহিত্যিক এয়াকুব আলী চৌধুরী নামে অভিহিত বাংলাভাষার...

Subscribe Our Newsletter

welcome to our newsletter subscription

প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রকাশকঃ- সালেকউদ্দিন শেখ সুমন

Made in kushtia

Go to top